ইউরোপীয় ইউনিয়নের নতুন কেউ ব্রিটেনে স্থায়ী হতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন দেশটির নতুন বেক্সিট বিষয়ক মন্ত্রী ডেভিড ডেবিস। ইউরোপ থেকে ব্রিটেনের বের হয়ে আসার প্রধান আলোচিত বিষয় ছিল ইমিগ্রেশন।

মন্ত্রী বলেন গণভোটের কাছাকাছি সময়ে যেসব মাইগ্র্যান্ট ইইউর বিভিন্ন দেশ থেকে ব্রিটেনে প্রবেশ করেছেন, তারা ব্রিটেনে স্থায়ীভাবে বসবাসের সুযোগ নাও পেতে পারেন। রেফারেন্ডামের সুযোগটাকে কাজে লাগিয়ে খুব দ্রুত যারা ব্রিটেনের প্রবেশ করেছে তাদের ক্ষেত্রে স্থায়ীভাবে বসবাসের সুযোগ একেবারেই নেই বলেও জানান তিনি। তবে এক্ষেত্রে ইউরোপীয়ান ইউনিয়নের আইনের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে একটি তারিখ নির্ধারিত করে ডেডলাইন বেধে দেয়া হবে বলে জানান ব্রেক্সিট সেক্রেটারি। ব্রিটিশ এবং ইইউ আইনের সমন্বয়ে পারস্পরিক স্বার্থ বিবেচনা করে একটি চুক্তিতে পৌঁছাতে না পারলে রেফারেন্ডামের কাছাকাছি সময়ে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন থেকে আসা মাইগ্র্যান্টদের ব্রিটেনে স্থায়ীভাবে বসবাসের সুযোগ দেয়ার ব্যাপারে নিশ্চিত করে কিছু বলা যাবে না বলেও জানিয়েছেন ব্রিটিশ ব্রেক্সিট সেক্রেটারি ডেভিড ডেভিস।যদি ও ২০১৭ সাল থেকে বেক্সিট প্রক্রিয়া শুরু হবে, এবং ২০১৮ সাল নাগাদ সম্পূর্ণ ভাবে এই প্রক্রিয়া সমাপ্ত হবে বলে আশাবাদী বেক্সিটমন্ত্রী ডেভিড ডেবিস।

EU migrants who come to the UK as Brexit nears may not be given the right to stay, David Davis has said. The new Brexit secretary told Sky News there might have to be a cut-off point if there was a “surge” in new arrivals.But he said setting a date now could in itself prompt a “rush” of people moving before any deadline – and any steps must be compatible with EU law.

It comes amid pressure on the government to guarantee the right to stay to EU citizens already in the UK.

Follow the latest developments on our live page

Davis: Trigger Brexit by start of 2017

Australia wants Brexit trade deal

Ministers have said it would be “unwise” to fully guarantee EU citizens’ rights without a reciprocal deal for Britons living in other EU countries.

Mr Davis, who was appointed by the new prime minister, Theresa May, to oversee the negotiations on the UK’s exit from the European Union, said he wanted to secure a “generous settlement” for both EU nationals in the UK, and British citizens abroad.

Mrs May has previously suggested migration could rise ahead of the UK’s eventual exit from the EU.

‘Beat the deadline’

“We have to do it all together,” Mr Davis told Sky News’ Murnaghan, saying that this stopped “anybody being used as bargaining counters”.

He added: “If we make a very generous settlement as I’d like to do, then people are going to say, ‘Oh but then that’ll attract lots more people in because they want to beat the deadline’.

“And so what I’ve said is, let’s deal with that issue when we come to it. One way of dealing with it could be saying ‘OK, only people who arrived before a certain date get this protection’ – there are other ways too.

“But we’ve got to do it within the law as it stands because at that point we’ll still be within the European Union.”